মনফকিরা : নয় পেরিয়ে দশ

 

দেখতে-দেখতে প্রায় এক দশক হয়ে এল মনফকিরা-র।

নানা কিসিমের দলবাজ, ফেরেব্বাজ আর ধান্ধাবাজ থেকে শুরু করে একেবারে পাতি চোর-ছ্যাঁচোর পর্যন্ত সামলে এ যে আমরা পেরে উঠব, মানে এত বছর টিকে যাব, তা কি আমরা ভাবতে পেরেছিলাম!

দুনিয়ার আর সব জায়গার মতোই বইপত্রের জগতেও যে এই সব উপদ্রবের কোন অভাব নেই, তা-ই বা কে জানত!

অন্তত আমরা জানতাম না। সেদিক থেকে বেশ উল্লেখযোগ্য রকমের মূর্খ-ই যে ছিলাম আমরা, সে কথা স্বীকার করতে দ্বিধা নেই।

তো, প্রথম থেকেই এক হাতে আমরা এই সব সামলেছি, আর-এক হাতে কাজ করেছি।

কারণ, দুনিয়ার আর-৫টা বিষয়ে আমাদের জ্ঞান শোচনীয় রকমের কম হলেও অন্তত এইটুকু ধারণা আমাদের ছিল যে এ সব প্রতিহত করার উপায় একটাই, আর তা হল, কাজ করা, ক্রমাগত কাজ করে যাওয়া। একমাত্র কাজ দিয়েই এই সব উপদ্রবের মোকাবিলা করা সম্ভব।

 

আর কাজ মানে কী? জুতো সেলাই থেকে একেবারে চণ্ডীপাঠ পর্যন্ত।

আক্ষরিক অর্থেই তা-ই। আজ পর্যন্ত প্রকাশিত সমস্ত বইয়ের প্রি-প্রেস যাবতীয় কাজ থেকে পোস্ট-প্রডাকশন পর্বেও এমন কোন কাজ নেই, যা আমরা করিনি।

না আছে আমাদের টাকার জোর, না আছে লোকলস্কর। ফলে, এ সমস্তের অভাব আমাদের অপরিসীম শ্রম দিয়েই বরাবর পূরণ করতে হয়েছে।

এ কারণে নিজেদের আমরা মনফকিরা-র কর্মী বলি। স্বেচ্ছাশ্রমিকও বলতে পারি।

কিন্তু যে-কাজে এত উপদ্রব, উপরন্তু এত পরিশ্রম, সে কাজ এত বছর ধরে আমরা করে চলেছি কেন?

এর একটা সোজা-সরল উত্তর হল, এ ছাড়া আর কোন কাজ আমরা তেমন জানি না। এর চেয়ে ভালো বা বড় কোন কাজ করার যোগ্যতা যদি থাকত, তবে নিঃসন্দেহে আমরা তা-ই করতাম।

আর-একটা উত্তর, কাজটা আমরা ভালোও বাসি। ভুল করে কবে যেন অক্ষর আর শব্দের যাদুতে জড়িয়ে পড়েছিলাম, বুঝতে পারি যে এখনও তার জাল কেটে বেরোতে পারিনি মোটেই।

কিন্তু একই সঙ্গে, প্রায় এক নিঃশ্বাসেই উল্লেখ্য মনফকিরা-র অসংখ্য পাঠকের কথা। তাঁরা যদি সঙ্গে না-থাকেন, তবে মুদ্রিত এই সব অক্ষর ও শব্দের কি কোন মানে থাকে? তাঁরা আছেন, তাই আমরা আছি। আমাদের প্রেরণা তাঁরা, আমাদের সাহসও তাঁরা, তাঁরাই আমাদের পথপ্রদর্শক।

 

দেখতে-দেখতে প্রায় এক দশক হয়ে এল মনফকিরা-র।

এই এক দশকে কম-বেশি আড়াইশো বইয়ের কাজ আমরা করেছি। তার মধ্যে এই মুহূর্তে যা লভ্য, তার সমূহ ইতিবৃত্তান্ত রয়েছে আমাদের ওয়েবসাইটে। আর যা লভ্য নয়, তার একটা অংশ আর ছাপা বই হিসেবে নয়, ক্রমে পাওয়া যাবে ই-বুক হিসেবে। সে কাজ চলছে, তারও খানিকটা হদিশ আছে আমাদের ওয়েবসাইটে।

প্রকাশনার এই দশম বছরে বিশেষ কিছু পরিকল্পনা ছিল আমাদের, তার সব হয়তো করে ওঠা যাবে না, কিন্তু খানিকটা নিশ্চয়ই হবে।

আরও কয়েক বছর সক্রিয় থাকতে পারলে, আশা করা যায় যে আরও অনেক বই আমরা প্রকাশ করতে পারব।

 

(২০০৫-এর মে মাসের প্রথম দিনে মনফকিরা-র প্রথম চারটি বই প্রকাশিত হয়। সে হিসেবে ১ মে মনফকিরা-র জন্মদিন। ২০১৪-র এই দিনটিতে ন’ বছর পূর্ণ হল মনফকিরা-র।)

মনফকিরা-র নতুন ওয়েবসাইট-এর ঠিকানা

মনফকিরা-র নতুন ওয়েবসাইট-এর ঠিকানা : http://monfakira.com/

এখানে পাবেন : মনফকিরা প্রকাশিত যাবতীয় বইয়ের বিবরণ; কয়েকটি বইয়ের প্রিভিউ (আখ্যাপত্র, সূচিপত্র, ভুমিকা ইত্যাদি); মনফকিরা প্রকাশিত একগুচ্ছ ই-বইয়ের বিবরণ, কয়েকটির প্রিভিউ; অন্যান্য লিঙ্ক।
দেখুন, কেমন লাগল জানান।